শহীদ জিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তনের প্রতিবাদে সিলেটে স্বেচ্ছাসেবক দলের মিছিল

দৈনিক জনকণ্ঠ
প্রকাশিত ডিসেম্বর ১, ২০২০
শহীদ জিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তনের প্রতিবাদে সিলেটে স্বেচ্ছাসেবক দলের মিছিল

ডেক্স নিউজ: ঢাকার মোগলটুলিতে অবস্থিত মহান স্বাধীনতার ঘোষক, বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান উচ্চ বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তনের প্রতিবাদে কেন্দ্রীয় কর্মসূচীর অংশ হিসেবে মঙ্গলবার বিকেলে সিলেট নগরীতে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে সিলেট জেলা ও মহানগর স্বেচ্ছাসেবকদল। নগরীর আম্বরখানা থেকে মিছিলটি শুরু হয়ে চৌহাট্টা পয়েন্ট এক প্রতিবাদ সভায় মিলিত হয়।

সিলেট জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের যুগ্ম আহ্বায়ক আরিফ ইকবাল নেহাল চেয়ারম্যানের সভাপতিত্বে ও জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের যুগ্ম আহ্বায়ক জাকির হোসেন ও যুগ্ম আহ্বায়ক আব্দুল ওয়াহিদ সোহেলের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত প্রতিবাদ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন, স্বেচ্ছাসেবক দলের কেন্দ্রীয় সহ সভাপতি ও সিলেট মহানগর আহ্বায়ক কাউন্সিলর ফরহাদ চৌধুরী শামীম। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, ছাত্রদল কেন্দ্রীয় সংসদের সহ সভাপতি ও জেলা বিএনপির সদস্য আব্দুল আহাদ খান জামাল।
মিছিল সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ও বক্তব্য রাখেন, জেলা ও মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা আলী আনসার, দেলোয়ার হোসেন চৌধুরী, আকবর আলী খান, আহসান মাহবুব, আব্দুল হান্নান, জাবেদ হাসান জীবন, শহীদ হোসেন সাবু, ছালেক আহমদ, আলতাফ হোসেন টিটু, খন্দকার মনিরুজ্জামান, শেখ আব্দুল মনাফ, শাওন আহমদ ইমরান, আবুল কালাম সাহেদ, জাহেদ আহমদ, মাকসুদ আলম, সাইফুল আলম কোরেশী, নুরুল ইসলাম রুহুল, জাহাঙ্গীর মিয়া, তোফায়েল আহমদ তুহিন, মনির হোসেন, রাসেল খান, রিপন চৌধুরী, আজিজ খান সজিব, কামাল আহমদ, ফারুক আহমদ, তারাব আলী লিটন, জুয়েল তালুকদার, দেলোয়ার হোসেন, হাবিব আহমদ হৃদয় সায়েম আহমদ রনি, মোশাহিদ আহমদ, আছলাম মিয়া, নুরেশ আহমদ, শাহীন আহমদ, পলাশ গাজী, মো. জসিম, হাসান আহমদ, শরীফ আহমদ, খুর্শেদ গাজী, জাহাঙ্গীর আহমদ, তারেক মনোয়ার, আশিকুর রহমান আশিক, এস কে কবির, মাছুম আহমদ, হুমায়ুন মিয়া, মোস্তাক আহমদ, বাবুল, রাসেল, কাইয়ুম, সুমন, এনাম হোসেন রাজ প্রমুখ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে স্বেচ্ছাসেবক দলের কেন্দ্রীয় সহ সভাপতি ফরহাদ চৌধুরী শামীম বলেন, বর্তমান সরকার ঘৃণ্য প্রতিহিংসার রাজনীতিতে বিশ্বাসী। এজন্য ২০০৬ সালে পুরাণ ঢাকার শিক্ষার আলো প্রসারের জন্য স্থাপিত মহান স্বাধীনতার ঘোষক বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের নামে যে বিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে শুধুমাত্র রাজনৈতিক প্রতিহিংসা ও ইতিহাস বিকৃতির কারণে শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের নাম মুছে ফেলা হয়েছে। কিন্তু যারা এই অপকর্ম করেছে তারা হয়তো জানে না বাংলাদেশের কোটি কোটি মানুষের হৃদয়ে যে জিয়ার নাম লেখা আছে সেটা চাইলেই তারা মুছতে পারবে না। বরং সময়ের ব্যবধানে তারাই ইতিহাস থেকে মুছে যাবে। বিজ্ঞপ্তি

শেয়ার করে ছড়িয়ে দিন